চমকে ভরা ফ্রান্স-পর্তুগালের দল

চমকে ভরা ফ্রান্স-পর্তুগালের দল

গত ইউরোয় আলো ছড়িয়েছিলেন দুজনই। ফাইনালে এদেরের গোলে পর্তুগাল প্রথমবার জেতে মর্যাদার এই শিরোপা। আর দিমিত্রি পায়েত জাদুতে ফাইনালে নাম লেখায় ফ্রান্স। ইউরোর দুই তারা ঝরে পড়ল এবারের বিশ্বকাপ থেকে। গতকাল দিদিয়ের দেশম জানিয়েছেন রাশিয়া বিশ্বকাপে চূড়ান্ত ২৩ জনের দল। সেখানে নেই পায়েত। তেমনি পর্তুগালের চূড়ান্ত ২৩ দলেও জায়গা পাননি এদের। ইউরোজয়ী দলের ১০ জনকে বাদ দিয়েছেন কোচ ফের্নান্দো সান্তোস। তাঁদের অন্যতম নানি, আন্দ্রে গোমেস আর নেলসন সেমেদাও।

পায়েতের জন্য দুঃস্বপ্নের একটা সপ্তাহ কাটল রীতিমতো। ইউরোপা লিগ ফাইনালে ইনজুরিতে পড়ে মাঠ ছেড়েছিলেন বিরতির আগে। কাল হলো সেটাই। তাঁকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাননি ফরাসি কোচ দেশম, ‘বিশ্বকাপ ভাবনায় ভালোভাবে ছিল পায়েত। ইউরোপা ফাইনালে ইনজুরিতে পড়ার আগে দুর্দান্ত খেলছিল ও। এ ধরনের চোট সারতে সময় লাগে। এ জন্যই ঝুঁকি নিইনি।’ পায়েতের জায়গাটা নেবেন তাঁরই মার্শেই সতীর্থ ফ্লোরিয়ান থোভিন কিংবা লিঁওর অধিনায়ক নাবিল ফেকির। পায়েতের মতো বাদ পড়েছেন আরো কয়েকজন তারকা। তাঁদের অন্যতম ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অ্যান্থনি মার্শিয়াল, আর্সেনালের আলেসান্দ্রো লাকাজাতে আর পিএসজির আদ্রিয়ান রাবিও। তবে আন্তোয়ান গ্রিয়েজমান, কিলিয়ান এমবাপ্পে, উসমান দেম্বেলে, অলিভার জিরদ, স্যামুয়েল উমতিতি, রাফায়েল ভারানেদের নিয়ে ফ্রান্স স্বপ্নেরই এক দল। ১৯ বছর বয়সী পিএসজি তারকা এমবাপ্পে দেশের জার্সিতে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেয়ে কৃতজ্ঞতা জানালেন দেশমকে, ‘১৯ বছরের অন্য ছেলেদের মতো আমিও ভেবেছিলাম বিশ্বকাপটা বন্ধুদের নিয়ে দেখব। সেখানে দেশম আস্থা রেখে জাতীয় দলের জার্সি দিয়েছেন আমাকে। তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞ আমি।’

দিন কয়েক আগে প্রাথমিক দল দিয়েছিলেন পর্তুগিজ কোচ  ফের্নান্দো সান্তোস। গতকাল চূড়ান্ত ২৩ জনের নাম জানিয়ে দিলেন তিনি। ইউরো ফাইনালে গোল করে পর্তুগালকে আনন্দে ভাসানো এদের নেই সেই দলে। রাশিয়ান লিগে লোকমোতিভ মস্কোর হয়ে পুরো মৌসুমে মাত্র চার গোল এদেরের। এ জন্যই সান্তোস নিয়েছেন কঠোর সিদ্ধান্তটা। রোনালদো আর ফিগোর পর পর্তুগালের হয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ ১১২ ম্যাচ খেলেছেন নানি। তবে ইতালিয়ান দল লািসওতে এই মৌসুমে অনিয়মিত ছিলেন তিনি। খেলেছেন মাত্র ২৪ ম্যাচ। বার্সেলোনায় অনিয়মিত ছিলেন আন্দ্রে গোমেস আর নেলসন সেমেদাও। এ জন্যই ইউরোজয়ী এই খেলোয়াড়দের রাখেননি সান্তোস, ‘তারা সবাই দারুণ অবদান রেখেছিল ইউরো জয়ে। ওদের বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়াটা সহজ ছিল না। কিন্তু কোচ হিসেবে সেরা দলটা বেছে নিতে হয়েছে আমাকে।’ এএফপি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Top